ঢাকাবুধবার , ২৩ জুন ২০২১

সমুদ্র উপকূলে পাওয়া গেলো ডাইনোসরের পায়ের ছাপ!

দেশ জুড়ে
জুন ২৩, ২০২১ ১:৩৫ অপরাহ্ন
Link Copied!

সর্বশেষ যুক্তরাজ্যের মাটিতে হেঁটে বেড়ানো কমপক্ষে ১১০ মিলিয়ন বছর আগে ডাইনোসরের অন্তত ছয়টি প্রজাতির পায়ের ছাপ পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন গবেষকরা।

ফিলিপ হ্যাডল্যান্ড জানিয়েছেন,যুক্তরাজ্যের কেন্ট এলাকায় পাথরের গায়ে ছয়টি ভিন্ন প্রজাতির ডাইনোসরের পায়ের ছাপ পাওয়া গেছে। এই এলাকাটি মূলত ঝড়-বৃষ্টি প্রবণ। উপকূল এলাকায় পানির তোড়ে প্রায়ই নতুন জীবাশ্মের হদিশ মেলে সেখানে।

প্রাণী ও উদ্ভিদবিদ্যার অধ্যাপক ডেভিড মার্টিল বলেন, পাথরের স্তরে এই ধরণের পায়ের ছাপ দেখা গেল এই প্রথম। এটাকে ফোকস্টোর ফরমেশন বলা হয়। এটা খুবই বিরল ঘটনা। হয়ত শেষ জীবন্ত ডাইনোসরের পা পড়েছিল এই পাথরগুলোর উপরেই।

তিনি আরও বলেন, এগুলো আলাদা আলাদা প্রজাতির, পায়ের ছাপগুলো দেখে বোঝা যাচ্ছে। অনুমান করা যায় দক্ষিণ ইংল্যান্ডের এই অংশে একাধিক প্রজাতির ডাইনোসর ছিল।
আরও জানিয়েছেন তিনি এই পায়ের ছাপ আনুমানিক ১১০ মিলিয়ন বছর পুরনো । বিজ্ঞানীদের ধারণা পিঠে কাঁটাজাতীয় অ্যাঙ্কিলোসরাস, তিন পা বিশিষ্ট থেরোপডস, মাংসাশী টাইরেনোসরাস, টাইরেনোসরার রেক্স, তৃণভোজী ও ডানা বিশিষ্ট অর্নিথোপডসের পায়ের ছাপ এগুলো।

তিনি বলেন, কেন্ট এলাকার পাথরে অস্বাভাবিক কিছু লক্ষ্য করেছিলাম ২০১১ সাল থেকেই। অনেকবার এই ছাপ লক্ষ্য করা গেছে। বহুদিন ধরেই অনুসন্ধান চালাচ্ছিলাম। কিন্তু জোয়ারের পানিতে ভূমিক্ষয় হওয়ায় ধীরে ধীরে এই পায়ের ছাপ আরও স্পষ্ট হয়। প্রথমে সেটাকে হাতির পায়ের ছাপ মনে হলেও পরে আরও খতিয়ে দেখে বোঝা যায় এটি অর্নিথোপডিক্স নামে বিলুপ্ত প্রজাতির কোনো প্রাণীর।

গবেষণা’য় জানা গেছে, ১১০ মিলিয়ন বছর আগে চীনেও এই জাতীয় ডাইনোসরা’সের অস্তিত্ব ছিল । ৬৫ থেকে ৮০ সেন্টিমিটার আকৃতির এই পায়ের ছাপ সেই সময়কার ডাইনোস’রের পায়ের আকৃতির সঙ্গে হুবহু মিলে যাচ্ছে।  এ ব্যাপারে অধ্যাপক মার্টিল বলেন, এত যুগ পর এই জায়গায় ডাইনো-সরাসের পায়ের ছাপ মেলা সত্যিই রোমহর্ষক!

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।