ঢাকা ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কাকাতো ভাইদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:১৮:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর ২০২১
  • / 81
দেশজুড়ে অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আবারো বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন ভুক্তভোগী নবমিকা বিশ্বাস। গত রবিবার বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে উপজেলার হরিনটানা থানাধীন বিধান সড়ক এলাকায় জমি-সম্পত্তি দখলের প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কৈয়া (বিধান সড়ক) নামক স্থানের জনৈক মৃত সুপদ বিশ্বাসের মেয়ে নবমিকা বিশ্বাস‌।

তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন,তার পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত জমাজমি এজমালিতে রেকর্ড করে দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগদখলে থাকা অবস্থায় তার কাকাতো ভাইয়েরা মৃত:গূরুপদ বিশ্বাস এর ছেলে শেখর বিশ্বাস,বিপ্লব বিশ্বাস, মৃত খগেন্দ্র নাথ বৈরাগীর ছেলে নিত্যানন্দ বৈরাগী,মৃত নারায়ণ মন্ডল এর ছেলে অমল মন্ডল সহ একদল ভূমিদস্যু জোরপূর্বক জমি দখল করাকে কেন্দ্র করে গত ১৮/০৯/২১ তারিখে বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করি।

তিনি আরো বলেন ,উক্ত সংবাদ সম্মেলনের পরে উক্ত দখলবাজ শেখর বিশ্বাস গং আমাদেরকে মানুষের সামনে হেয় প্রতিপন্ন করা এবং মান সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য তৎসহ আমাদের জায়গা জমি অবৈধভাবে দখল করার জন্য এলাকার কতিপয় কুচক্রী লোক এবং দালাল শ্রেণীর লোক সঙ্গে নিয়ে অবৈধ অর্থের বিনিময়( বিধান সড়ক) এলাকায় এক কাল্পনিক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে সেখানে বিভিন্ন ভাষায় আমাদেরকে তিরস্কার করেন। প্রকৃত বৃত্তান্ত ঘটনা হলো আমরা উক্ত জমি দখলে আছি।

আমাদের জন্য কোন প্লট কাটে নাই। আমাদের দাবি ছিলো আমরা জমির অর্ধেকটা পাব। সে কারণে আমাদের যায়গা বুঝে না দেওয়ায় আবার কাকা কৃষ্ণপদ বিশ্বাস বাদী হয়ে খুলনা সহকারী জজ আদালতে একটি বাটোয়ারা মামলা দায়ের করেন। যার নাম্বার ১০৩ /২০২১। তৎসহ আমাদের জায়গা জমি জোর করে দখল করতে আসায় উক্ত দখলবাজ এর বিরুদ্ধে আমি নবমিকা বিশ্বাস বাধা দিলে বিবাদীগন আমাকে দা , লোহার রড,কুড়াল,চাপাতি নিয়ে ধাওয়া করে। পরে আমরা খুলনা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১০৭/১১৭ ধারায় একটি ৭ ধারা মামলা দায়ের করি। যার নং ১৯০/২০২১।

আমাদের জায়গা জমি জোরপূর্বক দখল করলে আমরা হরিনটানা থানায় লিখিত অভিযোগ করি । এছাড়া আমি খুলনা পুলিশ সুপার বরাবর আবেদন করে কোন ফল পাইনি। তারপরও আমাদের জায়গা দখল করে সামনে বাশ দিয়ে একটি টিনের চালা ঘর তৈরি করে । এমতাবস্থায় কেএমপি পুলিশ কমিশনার,ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সকল দপ্তরের নিকট উক্ত বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে প্রশাসনে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রন্জিতা,শংকর, লাদেন ও কৃঞ্চপদ উপস্থিত ছিলেন। সার্বিক বিষয় বিবাদী শেখর বিশ্বাস বলেন, ঐ জমিটা সমান মালিক নবমিকা গং ও আমরা। তাই ওদের অংশে ওরা আছে এবং আমার অংশে আমি ঘর তৈরি করছি। এখানে বিরোধ করার কোন সুযোগ নাই। প্রয়োজনে আপনারা সরোজমিনে দেখে বিবেচনা করতে পারেন। তবে আমাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়।

আক্তারুল ইসলাম: বটিয়াঘাটা খুলনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

কাকাতো ভাইদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৫:১৮:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর ২০২১

আবারো বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন ভুক্তভোগী নবমিকা বিশ্বাস। গত রবিবার বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে উপজেলার হরিনটানা থানাধীন বিধান সড়ক এলাকায় জমি-সম্পত্তি দখলের প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কৈয়া (বিধান সড়ক) নামক স্থানের জনৈক মৃত সুপদ বিশ্বাসের মেয়ে নবমিকা বিশ্বাস‌।

তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন,তার পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত জমাজমি এজমালিতে রেকর্ড করে দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগদখলে থাকা অবস্থায় তার কাকাতো ভাইয়েরা মৃত:গূরুপদ বিশ্বাস এর ছেলে শেখর বিশ্বাস,বিপ্লব বিশ্বাস, মৃত খগেন্দ্র নাথ বৈরাগীর ছেলে নিত্যানন্দ বৈরাগী,মৃত নারায়ণ মন্ডল এর ছেলে অমল মন্ডল সহ একদল ভূমিদস্যু জোরপূর্বক জমি দখল করাকে কেন্দ্র করে গত ১৮/০৯/২১ তারিখে বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করি।

তিনি আরো বলেন ,উক্ত সংবাদ সম্মেলনের পরে উক্ত দখলবাজ শেখর বিশ্বাস গং আমাদেরকে মানুষের সামনে হেয় প্রতিপন্ন করা এবং মান সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য তৎসহ আমাদের জায়গা জমি অবৈধভাবে দখল করার জন্য এলাকার কতিপয় কুচক্রী লোক এবং দালাল শ্রেণীর লোক সঙ্গে নিয়ে অবৈধ অর্থের বিনিময়( বিধান সড়ক) এলাকায় এক কাল্পনিক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে সেখানে বিভিন্ন ভাষায় আমাদেরকে তিরস্কার করেন। প্রকৃত বৃত্তান্ত ঘটনা হলো আমরা উক্ত জমি দখলে আছি।

আমাদের জন্য কোন প্লট কাটে নাই। আমাদের দাবি ছিলো আমরা জমির অর্ধেকটা পাব। সে কারণে আমাদের যায়গা বুঝে না দেওয়ায় আবার কাকা কৃষ্ণপদ বিশ্বাস বাদী হয়ে খুলনা সহকারী জজ আদালতে একটি বাটোয়ারা মামলা দায়ের করেন। যার নাম্বার ১০৩ /২০২১। তৎসহ আমাদের জায়গা জমি জোর করে দখল করতে আসায় উক্ত দখলবাজ এর বিরুদ্ধে আমি নবমিকা বিশ্বাস বাধা দিলে বিবাদীগন আমাকে দা , লোহার রড,কুড়াল,চাপাতি নিয়ে ধাওয়া করে। পরে আমরা খুলনা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১০৭/১১৭ ধারায় একটি ৭ ধারা মামলা দায়ের করি। যার নং ১৯০/২০২১।

আমাদের জায়গা জমি জোরপূর্বক দখল করলে আমরা হরিনটানা থানায় লিখিত অভিযোগ করি । এছাড়া আমি খুলনা পুলিশ সুপার বরাবর আবেদন করে কোন ফল পাইনি। তারপরও আমাদের জায়গা দখল করে সামনে বাশ দিয়ে একটি টিনের চালা ঘর তৈরি করে । এমতাবস্থায় কেএমপি পুলিশ কমিশনার,ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সকল দপ্তরের নিকট উক্ত বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে প্রশাসনে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রন্জিতা,শংকর, লাদেন ও কৃঞ্চপদ উপস্থিত ছিলেন। সার্বিক বিষয় বিবাদী শেখর বিশ্বাস বলেন, ঐ জমিটা সমান মালিক নবমিকা গং ও আমরা। তাই ওদের অংশে ওরা আছে এবং আমার অংশে আমি ঘর তৈরি করছি। এখানে বিরোধ করার কোন সুযোগ নাই। প্রয়োজনে আপনারা সরোজমিনে দেখে বিবেচনা করতে পারেন। তবে আমাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়।

আক্তারুল ইসলাম: বটিয়াঘাটা খুলনা।